একটা করুণ প্রেম কাহিনী

0 views
0%
Share

একটা করুণ প্রেম কাহিনী- (কষ্ট করে পুরোটা পড়বেন প্লিজ।)
একটা ছেলে একটা মেয়েকে মনেমনে ভালবাসত। একটা সময় পর্যন্ত অপেক্ষা করে এক সময় মেয়েটিকে নিজের ভালবাসার কথা জানাল। মেয়েটি কিছু না বলে চলে গেল । সে মনে মনে ভাবল…
দেখি একটু পরীক্ষা করে কেমনএই ভালবাসা। ফলশ্রুতিতে শুরু হল ছেলেটিকে কষ্ট দেওয়া ।
কখনো কড়া কথা বলে, কখনো বাজে ব্যবহার করে, কখনো অবহেলা করে,
যখন যা ইচ্ছা করে ও শেষ পর্যন্ত দেখল ছেলেটি এখনো তাকেই ভালবাসে ।
এবার বুঝল, নাহ এই ছেলেটি তাকে আসলেই চায় ।
কিন্তু এরপরে ও নিজের মনের অজান্তের অহমিকা বোধটা হঠাৎ জেগে উঠে ।
মনে হয় এমন কত ছেলেই তো আমার জন্য পাগল ।
কি দরকার ঝামেলা মাথায় নিয়ে । শুধু শুধু একজনের সাথে এনগেইজ
হলে বাকিদের মন রাখবে কে??
এদিকে সবার অজান্তে কষ্টে এক প্রকার উম্মাদ হয়ে এক সময় ছেলেটা ভেতরে ভেতরে শেষ হয়ে গেল।
এরপরে অনেকদিন কেটে গেল।
এর মধ্যে বহুজনের কাছ থেকে পাওয়া প্রস্তাব যাচাই করে দেখল আসলেই ঐ একজনের সাথে কারোই তুলনা হচ্ছে না ।
এবার মেয়েটি একটি কাগজে সুন্দর করে লিখল, “কেউ যদি খুব সহজে সত্যিকার ভালবাসা পায় তাহলে সেটা সে মূল্যায়ন করতে পারে না। তোমাকে কষ্ট দিয়ে তাই সেভাবেই তৈরী করে নিলাম। কিন্তু একটা সঠিক সিদ্ধান্ত তো নিতে হবে।
আর তাই আজ তোমাকে স্বাগতম জানালাম।”
মেয়েটি ছেলেটিকে খুজতে খুজতে ছেলেটির বাসায় গেল। দরজায় ধাক্কা দিতেই খুলে গেল। খুব ছিমছাম নীরব ঘর।
আস্তে আস্তে ঢুকল। কারো সারা শব্দ নেই।
একটু এগিয়ে গিয়ে দেখল টেবিলে মাথা নিচু করে ছেলেটি বসে আছে।
খুব দুষ্টু হেসে আস্তে করে পিছন থেকে ছেলেটিকে ধরল।
আর কিছু বোঝার আগেই ছেলেটিরনিথর দেহটা গড়িয়ে পড়ল মাটিতে।
কব্জিতে জমাট বাধা রক্তটা বলে দিচ্ছে ছেলেটি আর নেই ।
মেয়েটি কি বলবে ভেবে উঠতে পারল না। শুধু দেখল পাশে একটা নীল খাম।
খামের ভেতর থেকে একটা কাগজ বের হল। সেখানে লেখা, “কেউ যদি খুব সহজে সত্যিকার ভালবাসা পায় তাহলে সেটা সেমূল্যায়ন করতে পারে না। সহজেই নিজের ভালবাসার কথা বলে তোমার দেওয়া কষ্টে তাইনিজের অজান্তেই
ধ্বংস হয়ে গেলাম । কিন্তু একটা সঠিক সিদ্ধান্ত তো নিতে হবে ।
আর তাই আজ তোমাকে বিদায় জানালাম।”
[বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ সস্তা টাইপ প্রেমের কাহিনী মনে হতে পারে অনেকের। যদিও মৃত্যু এখানে রূপক কিন্তু অহংকারের ফলে কিংবা এক তরফাভালবাসার পরীক্ষা নিতে গিয়ে অনেকেই শেষ পর্যন্ত ভালবাসার মানুষটিকে হারায

From:
Date: January 28, 2015