টেনশন কাকে বলে jocks

0 views
0%
Share

bangla 18+ adult jocks collections শিক্ষক: “টেনশন কাকে বলে?”

ছাত্র: মনে করেন আপনি রাস্তায় বের
হলেন গাড়ি নিয়ে।
হটাৎ,
সুন্দরী একটি মেয়ে লিফট চাইল? আপনি
দিলেন লিফট!
:
হটাৎ মেয়েটি গেল অসুস্থ হয়ে, আপনি
তাকে নিয়ে গেলেন হাসপাতালে
.
কিছুক্ষণ পর ডাক্তার এসে বললোঃ
মোবারক আপনি বাবা হতে চলেছেন!!
তখন শুরু হল টেনশন!
:
আপনি টাশকি খেয়ে বললেন,
:
আমি উনার স্বামী নই। কিন্তু মেয়েটি
জোর দিয়ে বলতে লাগলো আপনি তার
স্বামী।
:
টেনশন বাড়তে লাগলো!
:
পুলিশ আসল এবং আপনার মেডিকেল
চেক-আপ ডি এন এ টেস্ট হলো!
:
জানা গেলো যে, আপনি কোনদিন
বাবা হতে পারবেন না।
:
লও ঠ্যালা!
:
টেনশন গেল বেড়ে!
:
হাত পা ছেড়ে হাসপাতালের
বাইরে এসে চিন্তা করতে লাগলেন,
:
ঘরে দুই বাচ্চা তাহলে এই গুলো কার?
:
এটা হল আসল টেনশন স্যার!

 

Collection of all time best bangla jokes, mojar hasir golpo.

প্রেমিক-প্রেমিকার মধ্যে কথোপকথন…
প্রেমিকঃ আজকাল দুধ আর সোনার মধ্যে হাত দেওয়া খুব মুশকিল।
প্রেমিকাঃ যাও অসভ্য কোথাকার, আমার সঙ্গে কথা বলবা না।
প্রেমিকঃ তুমি ই বলো কিভাবে হাত দিবো, দুধের কেজি ৬০টাকা আর সোনার ভরী ৫০হাজার টাকা।
প্রেমিকাঃ ও, তাই বলো! আর আমি ভেবেছিলাম তুমি আমার

Valobasa24.com jocks

এক দম্পতি রাতের ট্রেনে বেড়াতে যাচ্ছেন। ফার্স্টক্লাস বগি। দুতলা সিটের উপরের তলার টিকেট কেটেছেন। রাত দশটায় ট্রেন ছাড়ল। স্বামী-স্ত্রী দুজনেই তাদের সিটে উঠে বসলেন। নিচের সিটে আরেক ভদ্রলোক বসেছেন। রাত একটু গভীর হতেই সবাই নিজ নিজ সিটে শুয়ে পড়ল। দম্পতি শুয়ে শুয়ে গল্প করতে করতে এক সময় শারীরিকভাবে উত্তেজিত হয়ে পড়লেন। স্ত্রী কাপড়-চোপড় খুলতে উদ্দত হলে স্বামী বাধা দিয়ে বললেন, ‌”না, তুমি আহ্, উহ্ শব্দ কর। এটা বাসা না; ট্রেন। আমরা কী করছি সবাই বুঝে ফেলবে।” স্ত্রী আহত কণ্ঠে বললেন, “তাহলে? আজ আমাদের হবে না?” “হবে। যদি তুমি আহ্, উহ্ শব্দ না করে আম জাম বল তাহলে হবে। ট্রেনের কেউ সন্দেহ করবে না।” “ঠিক আছে, তা-ই হবে।” দুজনেই গভীর রাত পর্যন্ত ফুর্তি করলেন। স্ত্রী আহ্, উহ্ না করে আম জাম বলে তার আনন্দ প্রকাশ করলেন। সকালে স্বামী ঘুম থেকে উঠে নিচে নেমে নিচের সিটের ভদ্রলোককে ভদ্রতা করে জিজ্ঞেস করলেন, “ভাই, রাতে ভাল ঘুম হয়েছে?” ভদ্রলোক হতাশ কণ্ঠে বলরেন, “ভাই ঘুম ভাল হবে কীভাবে বলুন? আপনারা স্বামী-স্ত্রী সারা রাত আম জাম খেলেন আর সকল রস
আমার উপর ফেললেন!

Valobasa24.com jocks

একবার এনজেলিনা জোলি আপা রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাচ্ছিল । তথন রাস্তার পোলাপান চিল্লাইতে লাগল যদি এই ঠোঁটে লিপস্টিক লাগানো থাকত তাইলে আরো চরম লাগত ।
তথন এনজেলিনা জোলি আপা বললেন-
তাইলে প্রত্যেকদিন কোনো না কোনো ছেলের স্টিকে লিপস্টিক লাগানো থাকত ।

Valobasa24.com jocks

 

কাশেম শহরে থাকে। তার বউ সখিনা থাকে গ্রামে। কাশেমেরই বন্ধু আবুল। কাশেম একদিন সখিনার জন্য “শাড়ি” কিনে পাঠালো আবুলের মাধ্যমে। প্যাকেট খোলা দেখে সখিনা বুঝতে পারে আবুল শাড়ির প্যাকেট খুলে দেখেছে। কিছুদিন পর আবার কাশেম সখিনার জন্য “ব্রা” কিনে পাঠালো আবুলের মাধ্যমেই। আবারো প্যাকেট খোলা দেখে সখিনা বুঝতে পারে আবুল প্যাকেট খুলে দেখেছে। বেশ কিছুদিন পর আবার কাশেম সখিনার জন্য “দুধ” কিনে পাঠালো ঐ আবুলের মাধ্যেমই। এবার সখিনা প্যাকেট হাতে নিয়ে দেখে প্যাকেট তো খোলা এর উপর আবার প্যাকেটে অর্ধেক দুধ নাই। তাই সখিনা রাগে- দুঃখে কাশেমকে চিঠি লিখলো। চিঠিতে যা লিখলো..

 

শোন তোমার বন্ধু ঐ আবুইল্যা একটা জানোয়ার !! সে প্রথমে আমার শাড়ি খুলছে,
আমি কিছু বলি নাই। আবার ব্রা খুলছে তারপরেও তোমারে কিছু কই নাই !! এখন আমার দুধ অর্ধেক খাইয়াও ফালাইছে

 

From:
Date: July 11, 2016