নিজের সাইজ জানুনঃ

ব্রা কিনতে গিয়ে ঝামেলা কিংবা বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়তে হয়নি, এমন নারী খুব কমই পাওয়া যাবে আমাদের দেশে। ব্রা কিনতে গিয়েও ঝামেলা সঠিক আকার নিয়ে, আবার কিনে আনার পর বাসায় এসেও দেখা যায় ঠিক মত ফিট হচ্ছে না। ফিট না হলে আবার দৌড়াতে হয় মার্কেটে সেটা বদলানোর জন্য। তাছাড়া আমাদের দেশে বেশিরভাগ ব্রা- এর দোকানে দেখা যায় পুরুষ বিক্রেতা, আবার ট্রায়াল করার ব্যবস্থাও থাকে না। আজকাল কিছু উন্নত সুবিধাযুক্ত শপ হয়েছে বটে, তবে প্রয়োজনের তুলনায় তা নিতান্তই অপ্রতুল। সত্যি বলতে নারীদের জন্য পুরুষ বিক্রেতাদের কাছ থেকে ব্রা কেনা এবং বদলানো দুটোই বেশ অস্বস্তিকর। তাই একবারেই ভালো করে দেখেশুনে ব্রা কিনলে এবং সেটার ঠিক মত যত্ন করতে পারলে বেশ অনেকদিন ব্যবহার করতে পারবেন একটি ব্রা। আসুন জেনে নেয়া যাক সঠিক মাপের ব্রা কেনার কিছু নিয়মঃ

ব্রা এর কাপের চাইতে ফিতার সাইজ কে গুরুত্ব দিনঃ ব্রা-এর কাপ সাইজের সাথে এর ফিতার সাইজের সম্পর্ক আছে। তাই ব্রা কেনার সময় ফিতার সাইজটাও দেখে নিন। উদাহরণ স্বরূপ, কিন্তু আপনি যদি শুকিয়ে যান তাহলে আপনার ব্রা এর ফিতা কিছুটা ঢিলা হয়ে যাবে, অথচ তখনও ব্রা এর কাপ ঠিক মত লাগার একটা সম্ভাবনা থাকবে। অর্থাৎ ব্রা এর মাপ সঠিক হওয়ার জন্য কাপের মাপের পাশাপাশি ফিতার মাপও দেখে কেনা উচিত। ওজন বাড়লে কমলে ব্রা-ও বদলে নিতে হবে।

পিঠের হুক দেখে কিনুনঃ প্রায় সব ব্রা-তেই হুক লাগানো ফিতা থাকে। পেছনে সেই হুক লাগিয়েই ব্রা পরা হয়। ব্রা কেনার সময় দেখে নিন সেই হুক লাগানোর অনেক গুলো ঘর আছে কিনা। যে ব্রা গুলোতে হুক লাগানোর জন্য একাধিক ঘর আছে সেগুলো কেনাই ভালো। তাহলে ব্রা এর ফিটিং ঠিক মত হওয়ার একটা সম্ভাবনা থাকে। হুকটা যে ফিতায় লাগানো থাকে, সেই ফিতা টানলে বড় হয় কিনা সেটাও দেখে কিনুন। বেশিরভাগ ব্রায়ের ফিতাই ফেলে দেয়ার আগ পর্যন্ত প্রায় ৩ ইঞ্চির মতন বাড়ে।

নিজের সাইজ জানুনঃ প্রতিনিয়তই আমাদের ওজন বাড়ছে বা কমছে। কিন্তু ব্রা তো আর রোজরোজ কেনা হচ্ছে না। তাই ব্রা কিনতে যাবার আগে প্রতিবারই মেপে দেখুন সাইজ। কমবেশি হলে সেই হিসাব মতন ব্রা কিনুন। আন্দাজে কিনতে যাবেন না।

পেছনে চওড়া ফিতাঃ ব্রা কেনার সময় অবশ্যই দেখে নিবেন পেছনের ফিতা বা বেল্ট যেন খুব বেশি চিকন না হয়। বিশেষ করে ওজন বেশি নারীরা চওড়া ফিতা দেখে ব্রা কিনুন। এতে আপনার বাড়তি চর্বি যেমন ঢেকে যাবে, তেমনই দেখতেও ভালো লাগবে। চিকন ফিতা বেশির ভাগ সময়েই পিঠে যন্ত্রণার সৃষ্টি করে।

ব্রা তৈরির উপাদানঃ এটা একটা অত্যন্ত জরুরী বিষয়। সিনথেটিক ব্রা নিয়মিত পরলে নানা রকম ত্বকের অসুখ হতে পারে। সাথে গরমের দিয়ে বাড়তি অস্বস্তি তো আছেই। নিয়মিত পরার জন্য সুতির ব্রা-ই ভালো।

একসঙ্গে একাধিক ব্রা কিনুনঃ ব্রা ভালো রাখতে হলে এবং সঠিক মাপে রেখে দীর্ঘদিন ব্যবহার করতে হলে একই ব্রা সপ্তাহে দুই দিনের বেশি পরবেন না। সম্ভব হলে একদিন পরুন। ইল্যাস্টিককে কয়েকদিন বিশ্রাম দিলে এর ইল্যাস্টিসিটি আবার আগের মত হয়ে যায় কিছুটা। তাই ব্রা কেনার সময় এক সঙ্গে একাধিক কিনুন, যেন বদলে বদলে পরা যায়।

ফিতা টাইট দেখে নিনঃ ব্রা এর ফিতা খুব বেশি টেনে উঠিয়ে রাখবেন না। অনেকেই ব্রায়ের ফিতা টেনে উঠিয়ে পরেন যাতে ফিতা কাঁধ বেয়ে পড়ে না যায়। কিন্তু এই অভ্যাসের কারণে ব্রা এর ফিতা খুব তাড়াতাড়ি ঢিলে হয়ে যায়। ব্রা কেনার সময় একটু টাইট দেখে কিনুন। তাহলে এমনিতেই ফিতা যায়গা মত থাকে। তাই কাঁধ বেয়ে পরে যাওয়ার ঝামেলা থাকে না।